ওয়েবসাইট তৈরীতে ডোমেইন এবং হোস্টিং কী ? Md Mosharof Hossain

ডোমেইন নেম কি?

Domain_Md_Mosharof_Hossain

Domain_Md_Mosharof_Hossain

মন‌ে করুন আপনার অফিসে কেউ আসতে চায়, তবে তাকে এর ঠিকানা জানতে হবে। ওয়েবসাইটের ক্ষেত্রে এই ঠিকানাটা হচ্ছে তার নাম যাকে বলা হয় ডোমেইন নেম। এই ডোমেইন নেমই আপনার ওয়েবসাইটকে অনন্যভাবে আইডেন্টিফাই করবে। বিশ্বের সবাই ওয়েবসাইটটিকে চিনবে এবং একসেস করবে এ নাম ব্যবহার করে।

ওয়েব সাইট হোস্টিং কী?

Hosting_Md_Mosharof_Hossain

Hosting_Md_Mosharof_Hossain

কোন তথ্যকে অন্যের কাছে তুলে ধরার সবচেয়ে জনপ্রিয় ও সহজ মাধ্যম হচ্ছে ওয়েবসাইট। আজকের কম্পিউটার ব্যবহারকারী মাত্রই ওয়েবসাইট সম্পর্কে অবগত আছেন। সহজ ভাষায় বলা যায়, ওয়েবসাইট হল আপনার তথ্যকে অন্যের সামনে উপস্থাপন করার রাস্তা- সেটা টেক্সট বা মাল্টিমিডিয়া (যেমনঃ ছবি, অডিও বা ভিডিও) যেকোন ধরনের হতে পারে। ওয়েবসাইটে সেগুলো সুন্দরভাবে ফুটিয়ে তোলা ওয়েব ডেভেলপারের কাজ। আর আপনার ওয়েবসাইটটি অন্যদের দেখার জন্য উপযোগী করাই ওয়েব হোস্টিং নামে পরিচিত। আপনার ওয়েবসাইটটিকে যদি তুলনা করা হয় আপনার প্রতিষ্ঠানের অফিস বিল্ডিং হিসাবে, তবে তার তথ্য বা কনটেন্ট হবে এর আসবাবপত্র। আর ওয়েবসাইট ডেভেলপ করাকে তুলনা করা যাবে বাড়িটি তৈরি করার সাথে। সেক্ষেত্রে ওয়েবসাইট হোস্টিংকে তুলনা করা যায় আপনার অফিস বিল্ডিংয়ের জন্য জায়গা কেনা এবং সে জায়গায় বাড়িটি তৈরি করার সাথে। তবেই ভিজিটররা ওয়েবসাইটি ব্যবহার করার সুযোগ পাবে।

 

একটা ওয়েবসাইট হতে পারে আপনার আয়ের শক্তিশালী অস্ত্র । বিশ্বে হাজার হাজার লোক আছে যারা একটা ওয়েবসাইট দিয়ে কোটিপতি বনে গেছে ।
কোটি টাকা না হউক আমরা কাজের ফাকে ফাকে ওয়েবসাইট দিয়ে ভালো একটা আরনিং করতে পারি।

কি ধরনের ওয়েবসাইট দিয়ে আয় করা যায়…
1.eCommerce Website (পণ্য বিক্রি করে আয় করতে পারি)
2.Blog Site (বিজ্ঞাপন বসিয়ে আয় করতে পারি)
3.Newspaper/Magazine(বিজ্ঞাপন বসিয়ে আয় করতে পারি)
4.Health Website(বিজ্ঞাপন বসিয়ে আয় করতে পারি)
5.Afiliate Website(বিজ্ঞাপন বসিয়ে আয় করতে পারি)
6.Job Site(বিজ্ঞাপন বসিয়ে আয় করতে পারি)

যে কোন ওয়েবসাইট দিয়েই আপনে আয় করতে পারবেন তবে আয় কম বেশি নির্ভর করে ওয়েবসাইট ভিজিটর উপর ।
যার ওয়েবসাইট-এর ভিজিটর বেশি তার আয় বেশি ।

বাংলাদেশে ই-কমার্স এর জোয়ার শুরু | Md Mosharof Hossain

বর্তমানে অধিকাংশ মানুষ ই-কমার্স নির্ভর হয়ে পড়ছে। তারই যের ধরে বাড়ছে ই-কমার্স ওয়েবসাইট ও!

ইন্টারন্যাশনাল জগতে Amazon ও eBay ‘র মত ওয়েবসাইট গুলো বেশ ভালো ব্যবসা করছে। উন্নত দেশের মত বাংলাদেশেও শুরু হয়েছে ই-কমার্স ধারা। বাংলাদেশে দিনে দিনে ই-কমার্স সেবার মান বৃদ্ধি পাচ্ছে, সাথে বৃদ্ধি পাছে ই-কমার্স ওয়েবসাইট ও। এখন সাধারণ জনগণ ও ধীরে ধীরে অনলাইন শপিং এ অভ্যস্ত হয়ে যাচ্ছে। মার্কেটে ঘুরে ঘুরে সময় নষ্ট করে শপিং করার মনমানসিকতা তাদের কমে গেছে। তারা এখন যেকোনো ধরনের কেনাকাটায় অনলাইন শপ অর্থাৎ ই-কমার্স এর উপর নির্ভরশীল হচ্ছে।

Ecommerce_Website_Md_Mosharof_Hossain

Ecommerce_Website_Md_Mosharof_Hossain

মোট কথা বাংলাদেশে ই-কমার্স এর জোয়ার শুরু হয়ে অন্যান্য উন্নত দেশের মতই। যেমনি ভাবে ভোক্তারা নির্ভর করছে ই-কমার্স ওয়েবসাইট এর উপর, তেমনি ব্যবসায়ীরাও ই-কমার্স এর মাধ্যমে তাদের ব্যবসার প্রসার ঘটাতে ব্যস্ত। ই-কমার্স এর এই জোয়ার কে ধরে রাখতে সকল ভালো মানের ব্যবসায়ী ইন্টারনেট ও ই-কমার্স নির্ভর হচ্ছেন।

আপনি যদি ব্যবসায়ী হন, তাহলে আপনারও উচিৎ অতি দ্রুত ই-কমার্স ওয়েবসাইট তৈরি করা।